May 24, 2024, 1:58 am
শিরোনাম
গিয়াস ও সামির নেতৃত্বে ইবি’র কক্সবাজার জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতি পবিপ্রবিতে অফিসার্স এসোসিয়েশনের মতবিনিময় সভা পবিপ্রবিতে ‘পাওয়ারিং দ্যা ফিউচার’ শীর্ষক সেমিনার ইবিতে কক্সবাজার জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির পুনর্মিলনী ও নবীন বরণ অনুষ্ঠিত বেরোবি ফিল্ম এন্ড আর্ট সোসাইটির নেতৃত্বে সোয়েব ও অর্ণব ইবি রোভার স্কাউটের বার্ষিক তাবুঁবাস ও দীক্ষা অনুষ্ঠান শুরু সেভেন স্টার বাস কাউন্টারের কর্মীদের হামলার শিকার পবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, আহত ৫ শিক্ষার্থীদের জন্য সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের আয়োজন করলো নোবিপ্রবিসাস ইবি ছাত্রলীগ সহ-সম্পাদকের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি জাবিতে কুরআনের অনুবাদ পাঠ প্রতিযোগিতার পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত

পবিপ্রবিতে আহরিত ইলিশ মাছের পরিচর্যা বিষয়ক কর্মশালা

,পবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : Monday, June 21, 2021,
  • 1 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে  ইলিশ মাছ আহরণ পরবর্তী পরিচর্যা বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত। মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ফিশারিজ টেকনোলজী বিভাগের অধীনে ড. মোঃ সাজেদুল হক এর তত্ত্বাবধানে পরিচালিত “বাংলাদেশের উপকূলীয় অঞ্চলের মৎস্য অবতরণ কেন্দ্রে ইলিশ মাছের আহরণ পরবর্তী ক্ষয়ক্ষতি নিরুপন ও উত্তরনের উপায়” শীর্ষক প্রকল্পের কর্মপরিকল্পনার অংশ হিসেবে এই কর্মশালা আয়োজন করা হয়।

উক্ত আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়টির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মৎস্যবিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক। উক্ত কর্মশালার প্রশিক্ষক হিসেবে ছিলেন ড. মোঃ সাজেদুল হক, সহযোগী অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান, ফিশারিজ টেকনোলজী বিভাগ, পবিপ্রবি ও প্রকল্প পরিচালক, সংশ্লিষ্ট প্রকল্প।

কর্মশালার প্রধান অতিথি প্রফেসর ড. স্বদেশ চন্দ্র সামন্ত বলেন, বর্তমান বিশ্ব নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাবারের বিষয় অনেক সচেতন, তাই মাছও অন্যতম পুষ্টিকর খাদ্য হিসেবে নিরাপদ হওয়া অধিক জরুরী। মৎস্য আহরণ পরবর্তী উত্তম পরিচর্যায়ই পারে অধিক পুষ্টিগুন সম্পন্ন মাছকে সবার কাছে নিরাপদ খাদ্য হিসেবে উপস্থাপন করতে এবং উক্ত গবেষণা প্রকল্প সে লক্ষেই কাজ করছে। এই প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কার্যক্রম, পবিপ্রবি’র সামাজিক দায়িত্ব পালনের অন্যতম অংশ যা বর্তমানে চলছে এবং ভবিষ্যতেও চলবে। আমরা আশা করি উক্ত প্রশিক্ষণের মাধ্যমে অত্র এলাকার মৎস্যজীবীরা মাছের আহরণ পরবর্তী ক্ষয়ক্ষতি রোধ করে মাছকে উত্তম পুষ্টিগুন সম্পন্ন নিরাপদ খাবার হিসেবে ভোক্তাদের সামনে তুলে ধরতে পারবেন যার মাধ্যমে অধিক মুনাফা অর্জন করে তাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটাতে পারবেন।

প্রশিক্ষক ড. মোঃ সাজেদুল হক বিভিন্ন তথ্য ও চিত্র প্রদর্শন করেন। কর্মশালায় দুৃমকি ও পটুয়াখালীর প্রায় অর্ধশতাধিক মৎজীবি অংশগ্রহণ করেন।

 

জীবন/

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023