May 20, 2024, 6:52 pm
শিরোনাম
মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে দেশটা: বিএনপি মহাসচিব ‘চ্যারিটি ফান্ড কেইউ’ এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন একজন আইনজীবীর প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা : অ্যাটর্নি জেনারেল জাবিতে ছাত্রলীগ সম্পাদকের বান্ধবীকে নিয়োগ দিতে তোড়জোড় যুক্তিতর্ক দেখে সবাই ভাবতো ভালো প্রতিষ্ঠান থেকে এসেছি : শাহ মনজুরুল হক ইবিতে মুজিব মুর‍্যালে এ্যাটর্নি জেনারেলের শ্রদ্ধা নিবেদন  বাংলাদেশ পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে জনগণের নিরাপত্তা দিয়ে আসছে : আইজিপি ইবি অধ্যাপক ড. ইকবাল হোসাইনের আত্মার মাগফিরাতে দোয়া মাহফিল কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রসংসদের সভাপতি হলেন জাবির সাবেক শিক্ষার্থী 

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এমপি ও মন্ত্রীরা প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না: সিইসি

কামরুল হাসান, ঢাকা
  • প্রকাশের সময় : Tuesday, May 7, 2024,
  • 50 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি ) কাজী হাবিবুল্ আউয়াল বলেন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে এমপি ও মন্ত্রীরা কোনরকম প্রভাব বিস্তার করতে পারবে না। তবু কেউ যদি প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করে তা কেন্দ্রীয়ভাবে নজরদারি করা হবে। একটু চেষ্টা করলে সাথে সাথে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হচ্ছে হুশিয়ারি দেন।

মঙ্গলবার (৭ই মে) রাজধানীর ঢাকার , আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশনার কার্যালয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এসব কথা বলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

তিনি বলেন মন্ত্রী বা এমপিদের আত্মীয়-স্বজনরা নির্বাচন করায় নির্বাচন কমিশনার বেকায়দায় পড়েনি। আসন্ন প্রথম দফা উপজেলা নির্বাচন সকল আয়োজন সম্পন্ন করা হয়েছে। কেউ প্রভাবিত করতে চাইলে, তা মেনে নেওয়া হবে না। নির্বাচন কমিশন মনিটরিং করবে। নির্বাচন প্রতিদ্বন্দিতামূলক হবে, নির্বাচনে প্রভাব বিস্তার রোধে কমিশন কাজ করবে। নির্বাচনের প্রভাব বিস্তারের বিষয়টি কেমন জটিল সমস্যা বলে মনে করছেন না নির্বাচন কমিশনার।

সিইসি বলেন দলীয় সিদ্ধান্ত অমান্য করে যে সকল প্রার্থীরা নির্বাচনে লড়াই করছে ।এটা তাদের দলীয় একান্ত বিষয়ে। এটি রাজনৈতিক নৈতিকতা।
তুই কি আরো জানান, তার লক্ষ্য হচ্ছে আবাধ, সুষ্ঠ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ব্যবস্থা করা।
উপজেলা পরিষদ নির্বাচন গণতন্ত্র রক্ষার অন্যতম একটি মানদন্ড বলে মনে করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার। তাই তিনি গণমাধ্যম কর্মী, আইন শৃঙ্খলা বাহিনী ও প্রশাসনের সহযোগিতা চান গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া নির্বাচন সম্পন্ন করতে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে জানান প্রতি কেন্দ্রের ১৭ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য থাকবে। স্পর্শকাতর কেন্দ্রগুলোতে ১৯ জন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য থাকবেন।
গত ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত, জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সাথে আসন্ন উপজেলা নির্বাচনের কোন পার্থক্য দেখেন কিনা? এমন প্রশ্নের উত্তরের সিইসি বলেন, ৭ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়েছে জাতীয় সংসদ নির্বাচন, এখন হচ্ছে উপজেলা নির্বাচন পার্থক্য এটাই। তবে উপজেলা নির্বাচনে উৎসাহ- উদ্দীপনা একটু বেশি থাকে। কিন্তু উৎসাহ উদ্দীপনা যেন সহিংসতা রূপ না নেয় সেদিকে লক্ষ্য রাখছে নির্বাচন কমিশন।
সংবাদ সম্মেলনে ইসি সচিব জাহাঙ্গীর আলম ও অতিরিক্ত সচিব অশোক দেবনাথ কুমার উপস্থিত ছিলেন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023