June 13, 2024, 1:59 pm

অসহায়ত্বের মিছিলে হাত বাড়িয়েছে একঝাঁক তরুণরা।

মোঃ মাইনুল ইসলাম মাটি গলাচিপা উপজেলা প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : Friday, June 9, 2023,
  • 7 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

দেশের অর্থ বাজারকে যখন আচ্ছন্ন করে তুলে অভাবের জ্বালাময় ধোয়া,তখন কিছু কলেজের পড়ুয়া ছেলে মেয়েরা মিলে গড়ে তুলেছে এক মানবতার ছায়া।

যেখনে উচ্চবিত্তরা কোটি কোটি টাকা কামিয়ে দিচ্ছে না অসহায়দের অনুদান,
সেখানে এই তরুণরা নিজেদের মাসিক খরচ থেকে বাঁচানো অর্থ দিয়ে পাশে দাড়াচ্ছেন তাদের।তাদের উত্তপ্ত রক্তের এক স্নিগ্ধ ছায়ায় যেনো তারা তাদের জড়িয়ে রেখেছে।
বার বার বুঝিয়ে দিচ্ছে মানবতা মরে যায় নি বাঙ্গালী।মানবতা বেচেঁ আছে আমাদেরই মাঝে কারোর না করোর হৃদয়ে।
পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা উপজেলার কিছু কীর্তি সন্তানরা মিলে তৈরি করেছে একটি সংস্থা,
নাম:”স্নিগ্ধ ছায়া ফাউন্ডেশন”
তাদের দেওয়া বিবৃতি থেকে জানা যায় তারা প্রত্যেকেই কলেজ পড়ুয়া ছাত্র।সমাজে নিম্ন বিত্ত মানুষের হাহাকার দেখে তাদের ভিতরে যে মানবতানুভাব জেগে উঠেছে, তারই বর্তমান ফলাফল এই স্নিগ্ধ ছায়া ফাউন্ডেশন।
এটি প্রতিষ্ঠিত হয় ২১ এপ্রিল,২০২৩ সালে।তাদের অগ্রযাত্রার প্রথম প্রজেক্ট হলো এতিম বাচ্চাদের ঈদের পাঞ্জাবি দেওয়ার মাধ্যমে তাদের মুখে হাসি ফুটানো।
এর পর ধীরে ধীরে মাত্র এক মাসের মাথায় তারা ৪ টা প্রজেক্ট নিয়ে মাঠে কাজ করেছে। তীব্র গরমে যখন পুরো দেশ হাহা কার করতেছিল, তখন এরা রিকশা ওয়ালা মামাদের ঠাণ্ডা পানি ও সেলাইন দিয়েছে।টাকা দিয়ে সহায়তা করেছে কিছু লোকদের ।
তারা নিজ নিজ জায়গা থেকে যতটা সম্ভব চেষ্টা করে যাচ্ছে অন্যের পাশে থাকা।এদের নিজেদের কোনো উপার্জন নেই।তবুও চেষ্টা করে যাচ্ছে।বলুন,তাহলে আপনার কি করা উচিত?আপনি কি এদের সমর্থন করেন?
এদের মূল লক্ষ্য হলো ভবিষ্যতে এই ফাউন্ডেশন যেনো সকলের মুখের হাসি হয়,এটি যেনো এক মানবতার দৃষ্টান্ত হয় । আপনি কি এদের লক্ষ্য পূরণে এগিয়ে আসবেন?সমাজের নিম্নবিত্ত মানুষদের সাহায্য করবেন?
সামনের কুরবানীতে যখন মেতে উঠে উচ্চবিত্তরা কার গরুর দাম কত,কত মোটা তাজা,
তখন এদের লক্ষ্য হচ্ছে এক বেলা গরীব বাচ্চা ও অসহায় মানুষদের ভালো কিছু খাওয়ানো।তাদের পরিকল্পনা অনুযায়ী তারা এমন কিছু তাদের খাওয়াতে চায় যার স্বাদ তারা আগে কখনো নেয় নি। এই প্রজেক্টের নাম দেওয়া হয়েছে “প্রজেক্ট স্বপ্ন আহার”।
এই তরুণদের সামনে এগিয়ে যেতে সাহায্য করুন।সদকা কোনো খারাপ বিষয় না।এটি আপনার সম্পদ আরো বৃদ্ধি করে দেয়।এদের পাশে থাকুন।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023