May 24, 2024, 1:28 am
শিরোনাম
গিয়াস ও সামির নেতৃত্বে ইবি’র কক্সবাজার জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতি পবিপ্রবিতে অফিসার্স এসোসিয়েশনের মতবিনিময় সভা পবিপ্রবিতে ‘পাওয়ারিং দ্যা ফিউচার’ শীর্ষক সেমিনার ইবিতে কক্সবাজার জেলা ছাত্রকল্যাণ সমিতির পুনর্মিলনী ও নবীন বরণ অনুষ্ঠিত বেরোবি ফিল্ম এন্ড আর্ট সোসাইটির নেতৃত্বে সোয়েব ও অর্ণব ইবি রোভার স্কাউটের বার্ষিক তাবুঁবাস ও দীক্ষা অনুষ্ঠান শুরু সেভেন স্টার বাস কাউন্টারের কর্মীদের হামলার শিকার পবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, আহত ৫ শিক্ষার্থীদের জন্য সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের আয়োজন করলো নোবিপ্রবিসাস ইবি ছাত্রলীগ সহ-সম্পাদকের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি জাবিতে কুরআনের অনুবাদ পাঠ প্রতিযোগিতার পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত

“লকডাউন হোক সেবা দানের নিশ্চয়তায়”

রাজু চন্দ্র দাস
  • প্রকাশের সময় : Tuesday, April 13, 2021,
  • 20 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বর্তমান সময়ে করোনা একটি মারাত্মক ব্যাধি। এর থেকে রেহাই পাচ্ছে না গোটা পৃথিবী। ইউরোপীয় দেশসহ পৃথিবীর সকল দেশেই দেখা দিচ্ছে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ। বাংলাদেশ ও এর ব্যতিক্রম নয়।দিনের পর দিন বেড়ে চলছে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার।
এর জন্য সরকার দিয়েছে লকডাউন। কিন্তু এই লকডাউন কতটুকু সঙ্গতিপূর্ণ??
বাংলাদেশের মত একটি নিম্নমধ্যম আয়ের দেশে যেখানে এখনও প্রায় ৬০ শতাংশ লোক দিন আনে দিন খায় সেখানে কীভাবে মেনে নিবে তারা এই লকডাউন?
নিম্ন ও মধ্যবিত্তের সমাজে আমরা শুধু বলির পাঠা!
লকডাউনের খবর শুনে অনেকই ছুটে চলছে নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকানে আর কিনে নিচ্ছে মাসিক বাজার।অথচ রিক্সা চালক,ভ্যান চালকের মতো হাজার হাজার মানুষ পাচ্ছে না একবেলার জন্য দু’মুটো খাবার। তারা কি করে থাকবে লকডাউনে বাসায় যাদের বাসা থেকে বের না হলে মিলে না প্রয়োজনীয় খাবার।
ভিক্ষুক হয়তো সবার কাছে হাত পেতে নিজের খাবার জোগাড় করে নেয় কিন্তু একটা বার কি ভেবে দেখেছেন মধ্যবিত্ত শ্রেণির লোকদের কি অবস্থা!?
তারা না পারে ভিক্ষা করতে না পারে লকডাউনে বের হয়ে রোজগার করে টাকা যোগার করতে। তাহলে কি করে চলবে তাদের সংসার?

করোনা হলে হয়তো হুট করে জীবনটা নিয়ে নেবে কিন্তু পরিবারের কর্তা হয়ে যদি দেখতে হয় ছোট বাচ্চাটি ক্ষুধার তাড়নায় না খেয়ে বসে আছে সেটা কি করোনার চেয়ে ও বড় কিছু?
জনসচেতনতার জন্য লকডাউন হয়তো প্রয়োজন কিন্তু লকডাউনের জন্য যদি হতাশায় না খেয়ে মরে যেতে হয় তাহলে লকডাউনের নেই কোনো প্রয়োজন।
হ্যা,লকডাউন অতীব জরুরি সেই সাথে আরো জরুরি সেবা দানের নিশ্চয়তা প্রদান করা।

লেখকঃ রাজু চন্দ্র দাস
শিক্ষার্থী
এম,সি কলেজ,সিলেট

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023