May 22, 2024, 4:53 pm
শিরোনাম
বেরোবি ফিল্ম এন্ড আর্ট সোসাইটির নেতৃত্বে সোয়েব ও অর্ণব ইবি রোভার স্কাউটের বার্ষিক তাবুঁবাস ও দীক্ষা অনুষ্ঠান শুরু সেভেন স্টার বাস কাউন্টারের কর্মীদের হামলার শিকার পবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, আহত ৫ শিক্ষার্থীদের জন্য সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের আয়োজন করলো নোবিপ্রবিসাস ইবি ছাত্রলীগ সহ-সম্পাদকের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি জাবিতে কুরআনের অনুবাদ পাঠ প্রতিযোগিতার পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে দেশটা: বিএনপি মহাসচিব ‘চ্যারিটি ফান্ড কেইউ’ এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন একজন আইনজীবীর প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা : অ্যাটর্নি জেনারেল

বেরোবির ৪০ শিক্ষার্থী পাচ্ছে এনএসটি ফেলোশিপ  

এ কে জায়ীদ বেরোবি প্রতিনিধিঃ
  • প্রকাশের সময় : Thursday, January 5, 2023,
  • 0 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

উচ্চশিক্ষায় গবেষণা সহযোগিতা প্রকল্প ‘জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ফেলোশিপ’ (এনএসটি) পাচ্ছেন বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ শিক্ষার্থী। প্রত্যেক শিক্ষার্থী গবেষণার জন্য পাবেন ৫৪ হাজার টাকা।

সম্প্রতি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের উপসচিব খান রেজা-উন-নবী স্বাক্ষরিত ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তি থেকে এ তথ্য জানা যায়।

২০২২-২৩ অর্থবছরে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭টি বিভাগ থেকে ৪০ জন শিক্ষার্থী ফেলোশিপ পাচ্ছেন। এর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা বিভাগ থেকে সর্বোচ্চ ১৩ জন, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৭ জন, পরিসংখ্যান বিভাগ থেকে ৬ জন, রসায়ন বিভাগ থেকে ৫ জন, গণিত বিভাগ থেকে ৪ জন, ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ৪ জন এবং ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ থেকে ১ জন শিক্ষার্থী এনএসটি ফেলোসিপের জন্য মনোনীত হয়েছেন। 

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের জীব ও ভূ-বিজ্ঞান অনুষদের ডিন আবু রেজা তৌফিকুল ইসলাম বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য এটি একটি ইতিবাচক দিক যে এক সঙ্গে অনেক সংখ্যক শিক্ষার্থী গবেষণার জন্য ফেলোশিপ পাচ্ছেন। আমি প্রত্যেক শিক্ষার্থীকেই বলবো, গবেষণা যেন কোয়ালিটি সম্পন্ন হয়। যা থেকে দেশ ও জাতি উপকৃত হতে পারে।

ফেলোশিপের জন্য মনোনীত গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী মোছাঃ সুমাইয়া খাতুন সুমি বলেন, খুব ভালো লাগছে যে ফেলোশিপের জন্য মনোনীত হয়েছি। গবেষণার জন্য তো অর্থেরও প্রয়োজন হয়। ফেলোশিপ পেয়ে অনেকটা আর্থিক সমর্থন পেলাম। তাই আগামীতে  সর্বোচ্চ চেষ্টা দিবে ভালো কিছু করার চেষ্টা করবো ।

পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী মিফতাহুজ্জান্নাত আমরিন জানান, জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি (এনএসটি) ফেলোশিপ মাস্টার্স থিসিস/প্রজেক্ট(গবেষণা) শিক্ষার্থীদের জন্য বাংলাদেশ সরকারের একটি অনুদান যা সত্যিই প্রশংসনীয়। ২০২২ এর আগস্ট মাসে এনএসটি ফেলোশিপ এর জন্য আবেদন করি, নভেম্বর মাসে ভাইভা দেই এবং অবশেষে আল্লাহ রহমতে ফেলোশিপ টির জন্য সিলেক্টেড হলাম।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023