May 22, 2024, 6:38 pm
শিরোনাম
বেরোবি ফিল্ম এন্ড আর্ট সোসাইটির নেতৃত্বে সোয়েব ও অর্ণব ইবি রোভার স্কাউটের বার্ষিক তাবুঁবাস ও দীক্ষা অনুষ্ঠান শুরু সেভেন স্টার বাস কাউন্টারের কর্মীদের হামলার শিকার পবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, আহত ৫ শিক্ষার্থীদের জন্য সাংবাদিকতায় বুনিয়াদি প্রশিক্ষণের আয়োজন করলো নোবিপ্রবিসাস ইবি ছাত্রলীগ সহ-সম্পাদকের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি জাবিতে কুরআনের অনুবাদ পাঠ প্রতিযোগিতার পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে দেশটা: বিএনপি মহাসচিব ‘চ্যারিটি ফান্ড কেইউ’ এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন একজন আইনজীবীর প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা : অ্যাটর্নি জেনারেল

চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক কেমন হবে, জানালেন বাইডেন

আন্তর্জাতিক ডেক্স
  • প্রকাশের সময় : Sunday, November 13, 2022,
  • 1 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে উচ্চপর্যায়ের আলোচনার সম্পর্কে জোর দেবেন জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, আমরা চীনের সঙ্গে যোগাযোগ ও আলোচনার দরজাও সবসময় উন্মুক্ত রাখতে চাই।

রোববার কম্বোডিয়ার রাজধানী নমপেনে অনুষ্ঠিত পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর সম্মেলন ‘ইস্ট এশিয়া সামিটে’ অংশগ্রহণ করে চীন সংক্রান্ত নানা ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান স্পষ্ট করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

বাইডেন বলেন, চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে তিনি ভালোভাবেই চেনেন। জিনপিংও তাকে চেনেন। তাদের মধ্যে সব সময় সোজাসাপটা আলোচনা হয়েছে। তবে তাদের মধ্যে অল্প ভুল–বোঝাবুঝিও রয়েছে।

বাইডেন বলেছেন, চীনের সঙ্গে আমাদের প্রতিযোগিতা অব্যাহত থাকবে এবং আমরা বেশ শক্তভাবেই এতে (প্রতিযোগিতায়) থাকব; কিন্তু এই প্রতিযোগিতা যেন কখনও সংঘাতে রূপ না নেয়, সেজন্য আমরা (চীনের সঙ্গে) যোগাযোগ ও আলোচনার দরজাও সবসময় উন্মুক্ত রাখতে চাই।

নিজ বক্তব্যে ইউক্রেনে সামরিক অভিযানের জন্য রাশিয়ার কড়া সমালোচনাও করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট। ইউক্রেনের যুদ্ধকে ‘নিষ্ঠুর ও অন্যায্য’ বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। 

তাইওয়ান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে উত্তেজনা রয়েছে। এক দশকেরও বেশি সময় ধরে বাইডেন ও জিনপিং একে অন্যের সঙ্গে পরিচিত। পাশাপাশি দক্ষিণ চীন সাগর ও তাইওয়ান প্রণালিতে চীনকে ‘সংযত’ থাকারও আহ্বান জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বাইডেনের ভাষ্যমতে, তাইওয়ান, দক্ষিণ চীন সাগর, উইঘুর মুসলিমসহ বিভিন্ন ইস্যুতে চীনের সঙ্গে দ্বন্দ্ব থাকলেও বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির এই দেশটির সঙ্গে সংঘাতে জড়ানোর কোনো ইচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের নেই।

পরিবর্তে চীনের সঙ্গে প্রতিযোগিতামূলক একটি সম্পর্ক রাখা এবং সেই সঙ্গে মানবাধিকার সংক্রান্ত বিভিন্ন ইস্যুতে চীনের ভূমিকার প্রতিক্রিয়া জানানোতেই আগ্রহী যুক্তরাষ্ট্র।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023