May 21, 2024, 1:40 pm
শিরোনাম
জাবিতে কুরআনের অনুবাদ পাঠ প্রতিযোগিতার পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে দেশটা: বিএনপি মহাসচিব ‘চ্যারিটি ফান্ড কেইউ’ এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন একজন আইনজীবীর প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা : অ্যাটর্নি জেনারেল জাবিতে ছাত্রলীগ সম্পাদকের বান্ধবীকে নিয়োগ দিতে তোড়জোড় যুক্তিতর্ক দেখে সবাই ভাবতো ভালো প্রতিষ্ঠান থেকে এসেছি : শাহ মনজুরুল হক ইবিতে মুজিব মুর‍্যালে এ্যাটর্নি জেনারেলের শ্রদ্ধা নিবেদন  বাংলাদেশ পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে জনগণের নিরাপত্তা দিয়ে আসছে : আইজিপি ইবি অধ্যাপক ড. ইকবাল হোসাইনের আত্মার মাগফিরাতে দোয়া মাহফিল

পবিপ্রবির টিএসসিতে নিম্ন মানের খাবারের উচ্চমূল্য

জান্নাতীন নাঈম জীবন/পবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : Wednesday, September 14, 2022,
  • 1 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (পবিপ্রবি) টিএসসিতে নিম্ন মানের খাবার পরিবেশন করার অভিযোগ উঠেছে ।
দীর্ঘদিন ধরে পবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মাঝে টিএসসির খাবারের মান এবং দাম নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে দেখা গেছে, টিএসসিতে পরিবেশনকৃত খাবারের মধ্যে মাছ কিংবা গোশতের টুকরোর আকার বাইরের খাবার হোটেলের চেয়ে ছোট,কিন্তু দাম বেশি। বাইরের খাবার হোটেলে পাঙ্গাশ মাছের টুকরো ৪০ টাকা কিন্তু অপেক্ষাকৃত ছোট আকারের টিএসসির পাঙ্গাশ মাছের টুকরো ৪৫টাকা।সবজি বাইরের খাবার হোটেলে পরিমাণে বেশি দেওয়া হলেও এবং প্রয়োজন অনুযায়ী দ্বিতীয়বার নেওয়ার সুযোগ থাকলেও ১০টাকা কিন্তু টিএসসিতে সামান্য পরিমাণ সবজি দেওয়া হলেও মূল্য ১৫ টাকা। এক প্লেট খিচুড়ি বাইরে ২০ টাকা হলেও টিএসসিতে তার মূল্য ২৫ টাকা। এভাবে টিএসসির প্রতিটি খাবারের মূল্য বাইরের খাবার হোটেলের চেয়ে বেশি। পাশাপাশি টিএসসিতে রয়েছে নানা অব্যবস্থাপনা। দীর্ঘ ১৫-২০ মিনিট বসে থাকার পরও খাবার গ্রহণের পূর্বে টেবিল পরিষ্কার না করা,খাবারের সময় পর্যাপ্ত পানির জগ কিংবা গ্লাসের সরবরাহ না থাকা এবং খাবার পরিবেশনকৃত স্টাফদের আচরণেও নানা সমস্যা রয়েছে এমন অভিযোগও রয়েছে।

টিএসসিতে ক্যাফেটেরিয়ার পরিচালক সোহাগ মৃধাকে এই বিষয়ে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি বলেন,আমাদের এইখানে ভাড়া অনেক বেশি। প্রতিমাসে ভাড়া বাবদ আমাদের ১৫৮০০ টাকা পরিশোধ করতে হয়।আমাদের এইখানে ১২জন স্টাফ কাজ করে, তাদের বেতন বাবদ প্রতিমাসে খরচ হয় এক লক্ষ্য পঞ্চাশ হাজার টাকা।এছাড়াও বর্তমানে দ্রব্যমূল্যের উর্ধগতির জন্য আমাদের খাবারের দাম বেশি। আমরা আগে চালের বস্তুা যে দামে ক্রয় করতাম এখন তাঁর জন্য অতিরিক্ত টাকা দিতে হয়।প্রতিটি দ্রব্যের দামই বৃদ্ধি পেয়েছে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর ড. সন্তোষ কুমার বসুর সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, টিএসসির খাবারের দামের বিষয়ে আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে,আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে মনিটরিং টিম গঠন করেছি।গঠিত মনিটরিং টিম ইতিমধ্যেই বাইরের খাবার হোটেলগুলোর খাবারের মান এবং দাম পর্যবেক্ষণ করছে। পাশাপাশি টিএসসির খাবারের দাম এবং মানও পর্যবেক্ষণ করবে।আমাদের টিএসসিতে পূর্বে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ কর্তৃক নির্ধারিত মূল্যতালিকা ছিলো, কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে জিনিসের দাম বেড়ে যাওয়ায় সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। আমরা আগামী ১সপ্তাহের মধ্যে মনিটরিং টিমের সাথে সমন্বয় করে বিশ্ববিদ্যালয় কতৃপক্ষ কর্তৃক নির্ধারণকৃত মূল্য তালিকা প্রকাশ করবো

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023