May 21, 2024, 1:27 pm
শিরোনাম
জাবিতে কুরআনের অনুবাদ পাঠ প্রতিযোগিতার পুরুষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে দেশটা: বিএনপি মহাসচিব ‘চ্যারিটি ফান্ড কেইউ’ এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন একজন আইনজীবীর প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা : অ্যাটর্নি জেনারেল জাবিতে ছাত্রলীগ সম্পাদকের বান্ধবীকে নিয়োগ দিতে তোড়জোড় যুক্তিতর্ক দেখে সবাই ভাবতো ভালো প্রতিষ্ঠান থেকে এসেছি : শাহ মনজুরুল হক ইবিতে মুজিব মুর‍্যালে এ্যাটর্নি জেনারেলের শ্রদ্ধা নিবেদন  বাংলাদেশ পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে জনগণের নিরাপত্তা দিয়ে আসছে : আইজিপি ইবি অধ্যাপক ড. ইকবাল হোসাইনের আত্মার মাগফিরাতে দোয়া মাহফিল

মাসিক “ফি” দিলেও মিলছে না জেনারেটর সুবিধা

জীবন-পবিপ্রবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : Tuesday, September 6, 2022,
  • 0 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

দক্ষিণবঙ্গের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠ পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়(পবিপ্রবি) অবকাঠামো ও শিক্ষা ক্ষেত্রে এগিয়ে গেলেও প্রশাসনিক স্থবিরতায় বাধাগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের সুযোগ সুবিধা।
নানা অব্যবস্থাপনার মধ্যে সাম্প্রতি যুক্ত হয়েছে জেনারেটর বিড়ম্বনা। লোডশেডিং এর সময় শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় যেন ব্যাঘাত না ঘটে তার জন্য জেনারেটর ব্যবস্থা থাকলেও সুবিধা থেকে বঞ্চিত শিক্ষার্থীরা এই অভিযোগ দীর্ঘদিনের।
লোডশেডিং এর পরে একাডেমিক এবং প্রশাসনিক ভবন এরিয়ায় নিয়মিত জেনারেটর সার্ভিস দিলেও শিক্ষার্থীদের হল গুলোতে দেওয়া হয় সিডিউল করে, এক হলে দিলে অন্য হলে দেওয়া হয়না ।
সাম্প্রতিক একাডেমিক কার্যক্রমও অনেকটা স্থবির হয়ে পড়ছে জেনারেটর বিড়ম্বনায়।
আজ (৬ সেপ্টেম্বর) সারাদিন লোডশেডিং থাকায় শিক্ষার্থীরা মাল্টিমিডিয়া ক্লাস থেকে বঞ্চিত হয়েছেন, সারাদিন লোডশেডিং থাকলেও জেনারেটর সার্ভিস পাওয়া যায়নি একাডেমিক সময়ে । লাইব্রেরি ও হলগুলোতে বিদ্যুৎ এবং জেনারেটর না থাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা।

কৃষি অনুষদের ১৭-১৮ সেশনের শিক্ষার্থী আসিফ আল মাহমুদ ইশান বলেন,-“শতভাগ আবাসিক হওয়া সত্বেও রাতে লোডশেডিং এ ঠিকমত আমরা জেনারেটর সার্ভিস পাইনা। একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য জেনারেটর দিলেও তা হলে হলে ভাগ করে দেওয়া হয়, এক হলে আলো থাকলেও অন্য হল থাকে অন্ধকারে। সাম্প্রতিক আবার এই সুবিধা থেকেও বঞ্চিত হচ্ছি। অথচ আমাদের থেকে নিয়মিত জেনারেটর নেওয়া হয়।”

২০১৮-১৯ সেশনের শিক্ষার্থী সৈয়দ ইমাম হোসেন বলেন, “আমাদের অনেক কোর্স কারিকুলামই মাল্টিমিডিয়া নির্ভর, সেক্ষেত্রে জেনারেটর সুবিধা না পাওয়ার কারনে আমাদের একাডেমিক কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। তাছাড়া একটি ক্লাসে প্রায় শতাধিক শিক্ষার্থী এমতাবস্থায় বিদ্যুতহীনভাবে ক্লাস ও পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা আমাদের পক্ষে কষ্টকর, আমরা জেনারেটর ফি দিলেও ঠিকমতো সুবিধা পাচ্ছি না।”

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার(ভারপ্রাপ্ত) ড. মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন- জেনারেটরে যান্ত্রিক ত্রুটি থাকায় ঠিকমতো সার্ভিস দিতে পারছে না। ত্রুটির কারনে ঢাকা থেকে মিস্ত্রি আনতে বলা হয়েছে যা সময় সাপেক্ষ। শিক্ষার্থীদের যে অভিযোগ প্রায়ই যান্ত্রিক ত্রুটির কথা শোনা গেলেও কতৃপক্ষ কার্যকরী পদক্ষেপ নিচ্ছে না তা সত্য নয় বলে দাবি করেন তিনি।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023