July 24, 2024, 6:31 pm
শিরোনাম
পবিপ্রবির বয়কটকৃত ছাত্রলীগ নেতার ক্ষমাপ্রার্থনা হাবিয়া দোজখে পরিণত হয়েছে কুমিল্লা’র শিক্ষার্থী ও পুলিশের মধ্যকার সংঘর্ষ ছাত্রলীগকে জাবি ক্যাম্পাসে নিষিদ্ধ ঘোষনা করার দাবি শিক্ষকদের কুবি ক্যাম্পাসে গভীর রাতে কুমিল্লা মহানগর ছাত্রলীগের হামলার আশংকা আহত শিক্ষার্থীদের পাশে থাকার ঘোষণা কুবির নৃবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের যশোরে অবরোধ, বেনাপোলের সাথে সারাদেশের যোগাযোগ বন্ধ কুমিল্লায় পুলিশের গুলিতে আহত ২ স্কুল শিক্ষার্থী জাবিতে শিক্ষার্থীদের উপর হামলার ঘটনায় শিক্ষকদের তোপের মুখে উপাচার্য ছাত্রলীগের দেয়া তালা ভেঙে কুবি শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর আন্দোলনকারীদের দখলে রাবি, ক্যাম্পাস ছাড়া ছাত্রলীগ

রাবির সামনে হবে ফুটওভার ব্রিজ

মোঃ সোহাগ আলী, রাবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : Wednesday, March 16, 2022,
  • 1 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক সংলগ্ন প্রধান ফটকসহ তিন ফটকের সামনে তিন ফুটওভার ব্রিজ বা পদচারী সেতু নির্মাণ করা হবে।

সড়কটি প্রশস্তকরণের পর এই কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা এম. তারেক নূর।

এবিষয়ে ছাত্র উপদেষ্টা এম. তারেক নূর বলেন,’মহাসড়ক প্রশস্তকরণের পর তিন ফটকে তিনটা ফুটওভার ব্রিজ করে দিবে সিটি কর্পোরেশন। এবিষয়ে তাদের সাথে কথা হয়েছে।’

বিশ্ববিদ্যালয়টির প্রধান ফটকসহ বিনোদপুর ও কাজলাতে মোট তিনটি ফটক রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়টির দক্ষিণ দিকে ব্যাস্ততম এই ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে বিরামহীনভাবে চলাচল করে দূরপাল্লার ও আন্তঃজেলার বাস, ট্রাক, পিকআপ, মাইক্রোবাস, প্রাইভেট কার, কাভার্ড ভ্যানসহ ভারী যানবাহন। ফলে রাস্তা পারাপারের জন্য কোনো পদচারী সেতু ও পথ না থাকায় ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পার হতে হয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের। যানবাহনের বেপরোয়া গতিতে চলাচলের কারণে নানা সময়ে ঘটছে দুর্ঘটনা।

বিশ্ববিদ্যালয়ে পর্যাপ্ত আবাসন সুবিধার অভাবে অধ্যয়নরত অধিকাংশ শিক্ষার্থীই এই ঝুকিপূর্ণ মহাসড়কের আশেপাশের মেস বা বাসায় অবস্থান করছেন। এই ফটকগুলো দিয়েই বেশিরভাগ অনাবাসিক শিক্ষার্থীকে অতিরিক্ত সাবধানতার সঙ্গে ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগের শিক্ষার্থী মো. শিহাব বিশ্বাস বলেন,’ক্যাম্পাসে যাতায়াতে এই সড়ক পারাপার হতে হয়। কোনো ফুটপাত না থাকায় রাস্তার ওপর দিয়েই চলাচল করতে হয় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। তাছাড়া যানজটের সৃষ্টি হয় মাঝেমধ্যে। তাই শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তার জন্য ও ভোগান্তি দূর করতে এই মহাসড়কে ফুটপাত ও ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণ করা উচিৎ।’

বিনোদপুর ফটকের সামনে মহাসড়কে কোনো স্পিড ব্রেকার না থাকা প্রসঙ্গে, ছাত্র উপদেষ্টা বলেন, ‘রাস্তার দুপাশে ডিভাইডার থাকায় হয়তো স্পিড ব্রেকার নাই। যাইহোক, আমি প্রকৌশলীকে বলে দিবো সড়ক ও জনপথ বিভাগের সাথে কথা বলতে।’

সরেজমিনে দেখা যায়, ক্যাম্পাসের অভ্যন্তরে চারুকলা ও কৃষি অনুষদের আশেপাশের রাস্তাগুলোতে স্পিড ব্রেকার নেই। বাইকসহ বিভিন্ন ধরনের যানবাহনের বেপরোয়া গতির কারণে এসব জায়গায় ভোগান্তি ও দুর্ঘটনায় পড়ছেন শিক্ষার্থীরা। শিক্ষার্থীদের দীর্ঘদিনের দাবি এসব পদচারী সেতু নির্মাণ করা হলে দুর্ঘটনার ঝুঁকি কমবে বলে আশা শিক্ষার্থীদের।

চারুকলা ও কৃষি অনুষদের রাস্তাগুলোতে কোনো স্পিড ব্রেকার নাই জানালে তিনি বলেন, ‘আমরা সিটি কর্পোরেশনকে ইতিমধ্যে জানিয়েছি এবিষয়ে। উনারা কাজটা করতে একটু দেরী করছে। এবিষয়ে আবার কথা বলবো উনাদের সাথে।’

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023