May 20, 2024, 7:52 pm
শিরোনাম
মগের মুল্লুকে পরিণত হয়েছে দেশটা: বিএনপি মহাসচিব ‘চ্যারিটি ফান্ড কেইউ’ এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু পবিপ্রবিতে বিশ্বকবির ১৬৩ তম জন্মজয়ন্তী উদযাপন একজন আইনজীবীর প্রথম দায়িত্ব হচ্ছে মানুষের অধিকার রক্ষার জন্য কাজ করা : অ্যাটর্নি জেনারেল জাবিতে ছাত্রলীগ সম্পাদকের বান্ধবীকে নিয়োগ দিতে তোড়জোড় যুক্তিতর্ক দেখে সবাই ভাবতো ভালো প্রতিষ্ঠান থেকে এসেছি : শাহ মনজুরুল হক ইবিতে মুজিব মুর‍্যালে এ্যাটর্নি জেনারেলের শ্রদ্ধা নিবেদন  বাংলাদেশ পুলিশ পেশাদারিত্বের সাথে জনগণের নিরাপত্তা দিয়ে আসছে : আইজিপি ইবি অধ্যাপক ড. ইকবাল হোসাইনের আত্মার মাগফিরাতে দোয়া মাহফিল কানাডার বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রসংসদের সভাপতি হলেন জাবির সাবেক শিক্ষার্থী 

বরাদ্দকৃত কক্ষে ছাত্রদের তুলে দিলো রাবির জিয়া হল প্রশাসন

সোহাগ আলী, রাবি প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : Wednesday, February 23, 2022,
  • 1 বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বরাদ্দকৃত কক্ষে ১৫ জন ছাত্রকে তুলে দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ জিয়াউর রহমান হল প্রশাসন। বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারী) বেলা দুইটা থেকে বরাদ্দকৃত কক্ষে কক্ষে গিয়ে ছাত্রদের তুলে দেওয়ার এই কার্যক্রম পরিচালনা করেন প্রশাসন।

এর আগে, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সিট বাণিজ্যের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে বরাদ্দকৃত সিটে অন্যজনকে অবৈধভাবে উঠিয়ে রাখার অভিযোগ উঠে। ফলে বরাদ্দকৃত সিটে উঠতে পারছে না অনেক শিক্ষার্থী।

এই উদ্যোগের বিষয়ে জানতে চাইলে জিয়াউর রহমান হলের প্রাধ্যক্ষ ড. সুজন সেন বলেন,’আমরা হল প্রশাসন একটি নিয়মতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় হলে শিক্ষার্থীদের আসন বরাদ্দ দিয়েছি। হলে সকল বরাদ্দপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীর আবাসনসহ সকল সুবিধা পাওয়ার অধিকার রয়েছে। আমরা সেই আবাসনের ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের হলে তুলছি। হলে অবৈধভাবে কেউ থাকতে পারবে না। যারা এখন পর্যন্ত হলে অবৈধভাবে অবস্থান করছে তাদের কক্ষ পরিদর্শনের মধ্যমে বৈধ শিক্ষার্থীদের আবাসন নিশ্চিত করছি। যতদিন পর্যন্ত বৈধ শিক্ষার্থীদের আবাসন নিশ্চিত করতে পারছি না, ততদিন পর্যন্ত আমাদের এই অভিযান চলবে।’

তিনি আরও বলেন,’যাদেরকে ইতোমধ্যে হলে আবাসন নিশ্চিত করেছি, তাদের পরবর্তীতে যদি আসন সংক্রান্ত কোন সমস্যা হয় আমরা সেই বিষয়টিও নজরে রাখবো। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন আমাদেরকে এই পদক্ষেপ বাস্তবায়নে সহযোগিতা করেছে। এই অবস্থার সমাধান না হওয়া অবধি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।’

প্রশাসনের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন হলের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। তাছাড়া কর্তৃপক্ষের এমন পদক্ষেপে হলে পড়াশোনাসহ সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় থাকবে বলে মনে করেন তারা।

এবিষয়ে জিয়াউর রহমান হলের আবাসিক শিক্ষার্থী প্রসেনজিৎ তিগ্যা বলেন,’অনেক শিক্ষার্থী হল কার্ড না করেই অবৈধভাবে সিটে অবস্থান করে। ফলে প্রাপ্য শিক্ষার্থীরা যেমন বঞ্চিত হয়, তেমনি হলের সুষ্ঠু পরিবেশেরও ব্যাঘাত ঘটে। তাই হল প্রশাসনের এই উদ্যোগের ফলে এমন অবস্থা রোধ করা সম্ভব হবে এবং এটা একটা শিক্ষার্থীবান্ধব উদ্যোগ বলে মনে করি আমি।’

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ
© প্রকাশকঃ ট্রাস্ট মিডিয়া হাউস © 2020-2023